চলো বাংলাদেশ ট্যুরস ট্রাভেল কার্ড কী কী কাজে লাগবে?

১। আমাদের যেকোনো ট্যুরে সর্বোচ্চ ৫০% পর্যন্ত ছাড় ( প্রমোশনাল ট্যুর/ প্রমোশনাল প্যাকেজ ব্যাতিত)

২। আমাদের কাছ থেকে অনলাইনে বাসের টিকিট কিনলে কোনো অনলাইন চার্জ দিতে হবে না। ঘরে বসেই কাউন্টারের দামে কিনতে পারবেন। সাধারণত প্রতি টিকিট ৪০-৫০ টাকা চার্জ নেওয়া হয় বাংলাদেশে। যেটি দেওয়া লাগবে না কার্ড হোল্ডারদের।

৩। আমাদের কাছ থেকে বিমানের টিকিট কিনলে এয়ারলাইন্স বেস ফেয়ারের উপর সর্বোচ্চ ১০% পর্যন্ত ছাড়

৪। আমাদের কিস্তিতে বা ইএমআই ট্যুরের জন্য অগ্রাধিকার পাবেন।

৫। আমাদের লিস্টেড হোটেল/রিসোর্টে সর্বোচ্চ ৫০% পর্যন্ত ছাড় ( প্রক্রিয়াধীন)

৬। রেস্টুরেন্ট ও ফুডে সর্বোচ্চ ১০% পর্যন্ত ছাড় ( প্রক্রিয়াধীন)।  

 

কার্ড নিয়ে আরও কিছু জিজ্ঞাসা

 

প্রশ্নঃ চলো বাংলাদেশ ট্যুরস ট্রাভেল কার্ড কীভাবে অর্ডার করবো?

 – নিচের ফর্মটি পূরণ করে অর্ডার করতে পারেন। অর্ডার করার ৭২ ঘন্টার মধ্যে আমাদের একজন প্রতিনিধি ফোনে যোগাযোগ করবে এবং আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দিবে। এরপর অর্ডার নিশ্চিত করতে চাইলে বিকাশে/নগদে পেমেন্ট করবেন।

পেমেন্ট করার ২-৭ দিনের মধ্যে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে কার্ড হাতে পাবেন। সুন্দরবন কুরিয়ার ছাড়া অন্য কুরিয়ারে হোম ডেলিভারি চাইলে ক্রেতাকে ডেলিভারি চার্জ দিতে হবে।

** বিকাশঃ 01538080865 ( মার্চেন্ট নাম্বার, বিকাশ মেনু থেকে ” Payment” সিলেক্ট করতে হবে)

 

প্রশ্নঃ চলো বাংলাদেশ ট্যুরস ট্রাভেল কার্ডের মুল্য কত?

 

– ২৯৯ টাকা (১ বছর মেয়াদ)

–  ৪৯৯ টাকা ( ২ বছর মেয়াদ)

 

প্রশ্নঃ  এই কার্ডের মেয়াদ এবং বছরে নবায়ন ফি কত?

 

– কার্ডের মেয়াদ ১ এবং ২  বছর। নবায়ন ফি প্রতি বছর মাত্র ৯৯ টাকা।

 

প্রশ্নঃ এই কার্ড কারা নিতে পারবে? 

 

– বাংলাদেশের যেকোনো নাগরিক এই কার্ড নিতে পারবেন।

 

প্রশ্নঃ একজনের কার্ড অন্যজন ব্যবহার করতে পারবে?

 

– না।

 

কার্ডের জন্য আবেদন করুন

//